বিয়েঃ দিল্লী কা লাড়ু

অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে,বিয়ে না করলে কি হয়? জীবনে বিয়ের দরকার আছে কি?এক সময় দেখা যায়, সিদ্ধান্তহীনতায়-অনিশ্চয়তায় সময় চলে যায়। বিয়ে করার আগ্রহ হারিয়ে যায় মানুষটি।বিয়ে না করলে  কি সাফল্যের পথে অন্তরায় হবে? 

পারতপক্ষে, বিয়ের সাথে প্রাচুর্যের বা সাফল্যের কোন সম্পর্ক আছে কি?বিয়ের সাথে প্রাচুর্যের পাশাপাশি কোন সম্পর্ক নেই। বিয়ে করেও মানুষ যে রকম সফল হয়েছে, বিয়ে ছাড়াও মানুষ সফল হয়েছে।

মাইকেল এইচ হার্ট সর্বকালের সেরা ১০০ জনকে নিয়ে একটি বই লিখেছেন। তাতে দেখা যাচ্ছে, এদের মধ্যে ১৯ জনই বিয়ে করেননি অর্থাৎ প্রায় এক পঞ্চমাংশ বিয়ে করেননি। অথচ তারা পৃথিবীতে প্রভাব বিস্তার করেছেন ।পৃথিবীতে বিয়ে তাদের সাফল্যের পথে,প্রাচুর্যের পথে, অবদান এর পথে, জ্ঞানের পথে গবেষণার পথে কোন অন্তরায় সৃষ্টি করতে পারেনি।

আবার যারা বিয়ে করেছেন তারাও সফল হয়েছেন। সমস্যাটা হয় তখন ই যখন আফসোস থাকে যে, বিয়ে করলে না জানি কত কিছু হতো।আবার, বিয়ে করার পর আফসোস আহা! বিয়ে না করলেই ভালো হতো। কত স্বাধীন ছিলাম! এখন আবার আরেকজনের কথা শুনতে হয়।কোথাও বের হতে গেলে বলে যেতে হয় কোথায় যাচ্ছি ?স্বাধীনচেতা সেই মনোভাব টা আর থাকে না।কোথাও ঘুরতে গেলে সাথে নিয়ে যেতে হয়।যদি এসব বিষয়ে আফসোস না  থাকে তাহলে ভিন্ন কথা।

বিয়ে করেও একজন মানুষ আফসোস করতে পারে, আবার বিয়ে না করেও একজন মানুষ আফসোস করতে পারে। এটা যার যার দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপার। সাফল্যের জন্য বিয়ে করা বা না করাটা কোন শর্ত নয়।তবে যদি বিয়ে না করার জন্য যদি কোন আফসোস মনের মধ্যে থাকে, তাহলে আফসোস নিয়ে জীবন পার করার চেয়ে বিয়ে করে ফেলাটাই ভালো।

জৈবিকতা যদি কারো কাছে মুখ্য না হয় তাহলে নিজেকে আলোকিত মানুষ গড়ার ক্ষেত্রে বিলিয়ে দিতে হবে। যার  বিয়ের ব্যাপারে মানসিক ইচ্ছা বা আগ্রহ নেই তাকে অবশ্যই সমাজের কল্যাণের জন্য কাজ করা উচিত।

বিয়ের ক্ষেত্রে,জৈবিক প্রয়োজন আপনার কাছে মূখ্য না হলেও যাকে বিয়ে করবেন তার তো জৈবিক প্রয়োজন আছে। সে ক্ষেত্রে বিয়ে করা আপনার জন্য অন্যায়। আবার শুধু জৈবিক প্রয়োজন পূরণ হলেই হবে না আপনি সন্তানের জনক-জননী হতে পারবেন কিনা সেটাও  দেখার বিষয়। যদি সেটা  না পারেন তবে বিয়ের আগেই পাত্র-পক্ষকে কিংবা পাত্রী-পক্ষকে  জানিয়ে দিতে হবে।

তারপর ও যদি অন্যপক্ষ রাজি হয় তাহলে খুব ভালো কিন্তু কখনো  মা-বাবা হতে পারবেন না তা জানার পরও যদি গোপন করে বিয়ে করেন এটা অপরাধ হবে।আপনি শুধু নিজের নয় আরেকটি মানুষের জীবন নষ্ট করলেন। আর আগ্রহ যদি না থাকে বিয়ে করা মানে অন্যজনকে কষ্ট দেওয়া।কারণ বিয়ে কারো একার ব্যাপার নয় অন্য আরেকটি জীবন এর  সাথে জড়িত।

SCAN TO VIEW

OUR OFFICES